প্রোগ্রামিং জগৎ এ ওয়ান অফ দ্য ভার্সেটাইল প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ হলো জাভাস্ক্রিপ্ট। বলা যায় প্রোগ্রামিং এর এমন কোন সেক্টর নেই যা জাভাস্ক্রিপ্ট দিয়ে করা যায় না। ওয়েব ডেভেলপমেন্ট থেকে শুরু করে, মোবাইল এপ ডেভেলপমেন্ট, সার্ভার সাইড এপ্লিকেশন, রোবটিক্স, মেশিন লার্নিং, সবই করা যায় মডার্ন জাভাস্ক্রিপ্ট দিয়ে।

মডার্ন জাভাস্ক্রিপ্ট এর এমন কয়েকটি গুরুত্বপুর্ন কয়েকটি ইউজ কেস নিয়ে জানবো আজকের ব্লগে।

ওয়েব ডেভেলপমেন্টে জাভাস্ক্রিপ্টঃ

মডার্ন ওয়েব ডেভেলপমেন্টের একটি গুরুত্বপুর্ন পার্ট হলো জাভাস্ক্রিপ্ট। ফ্রন্ট-এন্ড এর পাশাপাশি ব্যাক-এন্ডেও জাভাস্ক্রিপ্ট দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।

 ওয়েব ডেভেলপমেন্টে জাভাস্ক্রিপ্ট
ওয়েব ডেভেলপমেন্টে জাভাস্ক্রিপ্ট

জাভাস্ক্রিপ্টের শুরুর দিকে কিছু ডাইনামিক ফিচার যেমন, এনিমেশন, ভ্যালিডেশন, ডাইনামিক গ্রাফিক্স, ইত্যাদির জন্য জাভাস্ক্রিপ্ট ইউজ করা হলেও, এখন পুরোপুরি ফ্রন্ট-এন্ড ডেভেলপমেন্টে জাভাস্ক্রিপ্ট ব্যবহার করা হচ্ছে। ডাটা ফেচিং থেকে শুরু করে, রেন্ডারিং, ইউজার ইন্টারেকশন, সবই এখন জাভাস্ক্রিপ্টে করা হয় বা যায়। বর্তমানে মডার্ন ওয়েবসাইট বলতে জাভাস্ক্রিপ্ট পাওয়ারড ওয়েবসাইটকেই বলা হয়।

মোবাইল এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্টে জাভাস্ক্রিপ্টঃ

জাভাস্ক্রিপ্টের ইউজ কেসগুলোর মধ্যে অনেক জনপ্রিয় একটা শাখা হলো মোবাইল এপ ডেভেলপমেন্ট। জাভাস্ক্রিপ্টের অনেকগুলি ফ্রেমওয়ার্ক রয়েছে যেমন, রিয়েক্ট ন্যাটিভ, যা দিয়ে জাভাস্ক্রিপ্ট ব্যবহার করে খুব সহজেই ক্রস প্ল্যাটফর্ম মোবাইল এপ্লিকেশন বানানো যায়।

মোবাইল এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্টে জাভাস্ক্রিপ্ট
মোবাইল এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্টে জাভাস্ক্রিপ্ট

জাভাস্ক্রিপ্ট বেজড / ক্রস প্ল্যাটফর্ম মোবাইল এপ্লিকেশনের সুবিধা হলো, সেম কোড-বেজে আলাদা আলাদা অপারেটিং সিস্টেমের জন্য মোবাইল এপ বানানো সম্ভব। একবার কোড করে মাল্টিপল প্ল্যাটফর্মে এপ বিল্ডের সুবিধার জন্য ক্রস প্ল্যাটফর্ম ফ্রেমওয়ার্কগুলি দিনকে দিন জনপ্রিয় হচ্ছে। আর রিয়েক্ট ন্যাটিভ এই ক্রস প্ল্যাটফর্ম এপ ডেভেলপমেন্ট ফ্রেমওয়ার্কগুলির মধ্যে সবচেয়ে বেশী জনপ্রিয়, তাই জাভাস্ক্রিপ্ট এর ব্যবহারও দিনকে দিন বেড়ে চলেছে।

সার্ভার-সাইড এপ্লিকেশনে জাভাস্ক্রিপ্টঃ

বেশ কয়েকবছর জাভাস্ক্রিপ্ট শুধু ফ্রন্ট-এন্ডে ব্যবহৃত হলেও, নোডজেস এবং ক্রোমের জাভাস্ক্রিপ্ট রানটাইম এর মাধ্যমে জাভাস্ক্রিপ্ট সার্ভার-সাইডে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। লাইটওয়েট, স্কেলেবল, হাই-পার্ফরমেন্স সার্ভার সাইড এপ্লিকেশনে নোডজেএস এর ব্যবহার বেড়েই চলেছে। অসংখ্য এন্টারপ্রাইজ তাদের ব্যাকেন্ড নোডজেএস এ মাইগ্রেট করে ফেলেছে অলরেডি।

সার্ভার-সাইড এপ্লিকেশনে জাভাস্ক্রিপ্ট
সার্ভার-সাইড এপ্লিকেশনে জাভাস্ক্রিপ্ট

তাছাড়া ওয়েব সার্ভার সফটওয়্যার হিসেবেও নোডজেএস যথেস্ট পাওয়ারফুল। হাই পার্ফরমেন্স, ইভেন্ট ড্রাইভেন, নন-ব্লকিং ওয়েব সার্ভার হিসেবে নোডজেএস এর জুরি নেই। নোডজেএস জাভাস্ক্রিপ্ট কে ফুল-স্ট্যাক প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ হিসেবে জনপ্রিয় করে তুলছে।

গেম ডেভেলপমেন্টে জাভাস্ক্রিপ্টঃ

জাভাস্ক্রিপ্ট ভিডিও গেম ডেভেলপমেন্টে জনপ্রিয় না হলেও জাভাস্ক্রিপ্ট দিয়ে ভালোমানের ভিডিও গেম বানানো সম্ভব। জাভাস্ক্রিপ্ট দিয়ে গেম ডেভেলপমেন্টের জন্য বেশকিছু পাওয়ারফুল লাইব্রেরী রয়েছে, যা দিয়ে জাভাস্ক্রিপ্টে কোড করে হাই গ্রাফিক্সের গেম ডেভেলপ করা সম্ভব।

লাইটওয়েট এপ্লিকেশনে জাভাস্ক্রিপ্টঃ

লাইটওয়েট এপ্লিকেশনে জাভাস্ক্রিপ্ট এর ব্যবহার অনেক জনপ্রিয়। বেশকয়েকবছর আগে মজিলা’র মোবাইল অপারেটিং সিস্টেমকে লাইটওয়েট রাখতে জাভাস্ক্রিপ্টকে এপ ডেভেলপমেন্ট এর পছন্দ করা হয়েছিলো। তাছাড়া বেশকিছু স্মার্ট ওয়াচ অপারেটিং সিস্টেম (যেমন, পেবল) ওয়াচ এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্টে জাভাস্ক্রিপ্ট ব্যবহার করা হচ্ছে।

বিভিন্ন আইওটি ডিভাইসে জাভাস্ক্রিপ্টের ব্যবহার করা হয়। স্ক্রিন রয়েছে এমন বেশীরভাগ আইওটি ডিভাইসই জাভাস্ক্রিপ্ট বেজড এপ্লিকেশন ইউজ করে। তাছাড়া রবোটিক্সেও ইদানীং জাভাস্ক্রিপ্টের ব্যবহার হচ্ছে।

উপসংহারঃ

জাভাস্ক্রিপ্টের ইউজ কেস আসলে লিমিটেড বা ধরাবাঁধা নিয়ম মেনে হয় না। যেকোন কেসেই জাভাস্ক্রিপ্ট ব্যবহার করা সম্ভব, এবং ব্যবহার হচ্ছেও। টেকনোলজির এমন কোন শাখা নেই যেখানে জাভাস্ক্রিপ্টের আনাগোনা নেই। ব্রাউজার, সার্ভার, মোবাইল, স্মার্ট ওয়াচ, আইওটি সহ সকল কিছুতেই জাভাস্ক্রিপ্ট জনপ্রিয় এবং ভার্সেটাইল একটা ল্যাঙ্গুয়েজ।

পোস্টের মন্তব্যগুলি

কমেন্ট লোড হচ্ছে...

দুর্বল ইন্টারনেট কানেকশন

আপনার ইন্টারনেটের ধীরগতির জন্য পেজটি লোড হতে কিছুক্ষণ বেশী সময় লাগছে।